1. info@dailyjanatarbarta.com : Admin :
  2. admin2@dailyjanatarbarta.com : Editor Janatar Barta : Editor Janatar Barta
  3. araf@yopmail.com : araf :
  4. editor@dailyjanatarbarta.com : JanatarBarta Editor : JanatarBarta Editor
  5. test@yopmail.com : test :
সংবাদ শিরোনাম :
ভোলার মেঘনায় মালবাহী কার্গোতে ডাকাতি! দূই জলদস্যুকে ধরে ফেললো কোস্ট গার্ড প্রকাশিত কাল্পনিক সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানালেন বিজেপি নেতা জামালউদ্দিন চকেট সিপিডিএ ‘র দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে ক্যারিয়ার উন্নয়ন সপ্তাহ ১৫-২১ অক্টোবর সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু ৬ মাস ২১ দিন পর দলীয় কার্যালয়ে রিজভী কোনো নির্বাচন নির্বাচন খেলা হবে না: ওবায়দুল কাদের সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে মাঠ প্রশাসন মূল চালিকাশক্তি: প্রধানমন্ত্রী ভোলার মেঘনায় ৮ টি মালবাহী কার্গো জাহাজে ডাকাতির অভিযোগ! পুলিশের রহস্যময় ভূমিকা সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত

যুক্তরাষ্ট্রের একতরফা দাবি ইরান মানবে না: খামেনি

  • পোস্টের সময়কাল : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১
  • ১১২ মোট ভিউস্

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লা আলী খামেনি বলেছেন, পরমাণু চুক্তিতে ফেরার ব্যাপারে আলোচনা শুরু করতে যুক্তরাষ্ট্রের একতরফা দাবি ইরান মেনে নেবে না।

ইরানের এ নেতা বুধবার এক অনুষ্ঠানে ওই মন্তব্য করেন। খবর রয়টার্সের।

আয়াতুল্লা আলী খামেনি বলেন, ২০১৫ সালে হওয়া পরমাণু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র আবার বেরিয়ে যাবে না—এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই।

দেশটি কাপুরুষোচিত ও বিদ্বেষপূর্ণ আচরণ করছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। খামেনি অভিযোগ করে বলেন, কোনো কারণ ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্র একবার চুক্তি লঙ্ঘন করেছে।

২০১৫ সালে বারাক ওবামা প্রেসিডেন্ট থাকার সময় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ফ্রান্স, রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি হয় ইরানের।

ওই চুক্তির মূল বিষয় ছিল, ইরান পরমাণু কার্যক্রম সীমিত রাখবে এবং আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি কমিশন ইরানের যেকোনো পরমাণু স্থাপনায় যেকোনো সময় পরিদর্শন করতে পারবে। বিনিময়ে ইরানের ওপর থেকে অর্থনৈতিক অবরোধ তুলে নিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

কিন্তু সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে ওই চুক্তি থেকে বেরিয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। এরপর ইরানও এই চুক্তি থেকে সরে যায় এবং ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ শুরু করে।

যদিও দুই পক্ষ থেকে এই চুক্তিতে ফেরার ব্যাপারে বিভিন্ন সময়ই বলা হয়েছে। এ ছাড়া চুক্তিতে থাকা অন্য দেশগুলোর সঙ্গে ইরানের আলোচনা হয়েছে। কিন্তু এই আলোচনা ফলপ্রসূ হয়নি। এ ছাড়া এই চুক্তিতে ফিরতে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু সরাসরি কোনো আলোচনা হয়নি।

জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর চুক্তিতে ফিরবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তবে ট্রাম্পের আমলে যেসব নিষেধাজ্ঞা ইরানের ওপর আরোপ করা হয়েছে, তা এখনো প্রত্যাহার করা হয়নি।

তবে খামেনি বলেন, সম্প্রতি যে আলোচনাগুলো হয়েছে, তাতে যুক্তরাষ্ট্র তার অনমনীয় অবস্থান ধরে রেখেছে। তারা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে এবং কাগজে-কলমে বলছে, ইরানের ওপর থেকে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবে। কিন্তু তাদের কাজে এর প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে না।

শেয়ার করুন....

আরো দেখুন