1. info@dailyjanatarbarta.com : Admin :
  2. admin2@dailyjanatarbarta.com : Editor Janatar Barta : Editor Janatar Barta
  3. araf@yopmail.com : araf :
  4. editor@dailyjanatarbarta.com : JanatarBarta Editor : JanatarBarta Editor
  5. test@yopmail.com : test :
সংবাদ শিরোনাম :
ভোলার মেঘনায় মালবাহী কার্গোতে ডাকাতি! দূই জলদস্যুকে ধরে ফেললো কোস্ট গার্ড প্রকাশিত কাল্পনিক সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানালেন বিজেপি নেতা জামালউদ্দিন চকেট সিপিডিএ ‘র দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে ক্যারিয়ার উন্নয়ন সপ্তাহ ১৫-২১ অক্টোবর সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু ৬ মাস ২১ দিন পর দলীয় কার্যালয়ে রিজভী কোনো নির্বাচন নির্বাচন খেলা হবে না: ওবায়দুল কাদের সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে মাঠ প্রশাসন মূল চালিকাশক্তি: প্রধানমন্ত্রী ভোলার মেঘনায় ৮ টি মালবাহী কার্গো জাহাজে ডাকাতির অভিযোগ! পুলিশের রহস্যময় ভূমিকা সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত

মুসলিম বিরোধী স্লোগান, দিল্লিতে বিজেপি নেতাসহ গ্রেফতার ৫

  • পোস্টের সময়কাল : মঙ্গলবার, ১০ আগস্ট, ২০২১
  • ৮০ মোট ভিউস্

দিল্লির যন্তর মন্তরে মিছিল থেকে মুসলিম বিরোধী স্লোগান দেওয়ার ঘটনায় বিজেপি নেতা অশ্বিনী উপাধ্যায়সহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সংসদ ভবন এবং প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন থেকে মাত্র কয়েক কিলোমিটার দূরে সাম্প্রদায়িক এবং উস্কানিমূলক স্লোগানের ঘটনায় তাদের ভূমিকা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণ হলে কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি পুলিশের কমিশনার রাকেশ আস্থানা।

রোববার দিল্লি যন্তর মন্তরের কাছে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও দিল্লি বিজেপির সাবেক মুখপাত্র অশ্বিনী উপাধ্যায় নেতৃত্ব একটি মিছিল হয়।

এতে স্লোগান দেওয়া হয়  ‘হিন্দুস্তান মে রেহনা হোগা, জয় শ্রী রাম কেহনা হোগা’ অর্থাৎ ‘ভারতে থাকতে হলে জয় শ্রীরাম বলতে হবে।’ এ ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় মামলা করে দিল্লি পুলিশ।

সোমবার অশ্বিনীকে কনাট প্লেস থানায় ডেকে পাঠায় পুলিশ। তারপর রাতেই অন্যদের আটক করা হয়। অশ্বিনী যদিও সাম্প্রদায়িক স্লোগান দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

অশ্বিনী ছাড়াও দীপক সিংহ হিন্দু, বিনীত ক্রান্তি, প্রীত সিংহ, সুদর্শন বাহিনীর প্রধান বিনোদ শর্মা এবং এবং পিঙ্কি ভাইয়া নামের আরও পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিষয়টি নিয়ে সোমবার লোকসভার অধিবেশনে সোচ্চার হয়েছেন হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন থেকে মাত্র ২০ মিনিট দূরত্বে ‘মুসলিম-বিরোধী’ স্লোগান ওঠা সত্ত্বেও কেন প্রশাসনের তরফে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হল না, নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করে এই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

একইদিনে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দিল্লি পুলিশের কমিশনার রাকেশ আস্থানাকে চিঠি দিয়েছেন ভারতীয় মুসলমানদের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের প্রধান মাওলানা সাইয়্যেদ মাহমুদ আসআদ মাদানী।

শেয়ার করুন....

আরো দেখুন