1. info@dailyjanatarbarta.com : Admin :
  2. admin2@dailyjanatarbarta.com : Editor Janatar Barta : Editor Janatar Barta
  3. araf@yopmail.com : araf :
  4. editor@dailyjanatarbarta.com : JanatarBarta Editor : JanatarBarta Editor
  5. test@yopmail.com : test :
সংবাদ শিরোনাম :
ভোলার মেঘনায় মালবাহী কার্গোতে ডাকাতি! দূই জলদস্যুকে ধরে ফেললো কোস্ট গার্ড প্রকাশিত কাল্পনিক সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানালেন বিজেপি নেতা জামালউদ্দিন চকেট সিপিডিএ ‘র দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে ক্যারিয়ার উন্নয়ন সপ্তাহ ১৫-২১ অক্টোবর সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু ৬ মাস ২১ দিন পর দলীয় কার্যালয়ে রিজভী কোনো নির্বাচন নির্বাচন খেলা হবে না: ওবায়দুল কাদের সারাদেশে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে মাঠ প্রশাসন মূল চালিকাশক্তি: প্রধানমন্ত্রী ভোলার মেঘনায় ৮ টি মালবাহী কার্গো জাহাজে ডাকাতির অভিযোগ! পুলিশের রহস্যময় ভূমিকা সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত

বিএনপির সময়েই স্থিতিশীল অর্থনীতির সফল বাস্তবায়ন হয়েছে: মির্জা ফখরুল

  • পোস্টের সময়কাল : রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫৬ মোট ভিউস্

বিএনপির সময়ে সাইফুর রহমানের হাতেই দেশে স্থিতিশীল সামষ্টিক অর্থনীতির সফল বাস্তবায়ন হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান মনে করেছিলেন যে এই মানুষটিকে (সাইফুর রহমান) যদি আমার সঙ্গে পাই তাহলে বাংলাদেশের অর্থনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্যকে একটা নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসা যাবে। দেশটাকে সৃজনশীল অর্থনীতিতে পরিণত করতে সক্ষম হবো। তিনি প্রমাণও করেছিলেন। তার সময়ে ব্যাংকিং, বীমা এবং শেয়ার মার্কেটে ডিসিপ্লিন ছিল। সবচেয়ে বড় কৃতিত্ব ছিল তিনি একটা স্টেবল মাইক্রো ইকোনমি উপহার দিয়েছিলেন বাংলাদেশে।

রোববার সন্ধ্যায় এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের’ উদ্যোগে এ সভার আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, সাইফুর রহমানের ওপর দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার আস্থা ছিল, জিয়াউর রহমানের একটা আস্থা ছিল। গোটা জাতির একটা আস্থা ছিল। ১২ বার যিনি সংসদে বাজেট উপস্থাপন করেছেন। আজকের বাংলাদেশ রাতারাতি ভালো হয়ে যায়নি। যারা আজকে বড় বড় কথা বলেছেন এখন পার্থক্যটা এখানে যে, সাইফুর রহমান সাপ্লাইয়ার্স ক্রেডিট নিতে চান নাই। ঋণের আবদ্ধ হতে চাননি, ঋণ ডুবে মরতে চাননি। যে কারণে অত্যন্ত শৃঙ্খলার মধ্যে ধীরে ধীরে আগে খুঁটিটাকে শক্ত করে দেশের অর্থনীতিটাকে উঠাতে চেয়েছেন। সেজন্য স্লো যেতে চেয়েছেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, এম সাইফুর রহমান এমন একজন ব্যক্তিত্ব ছিলেন যিনি ব্যক্তি হিসেবে, পেশাজীবী হিসেবে, অর্থনীতিবিদ হিসেবে, রাজনীতিবিদ হিসেবে, মন্ত্রী হিসেবে সর্বক্ষেত্রে শুধু সফল নয়, দিক নির্দেশনা রেখে গেছেন। বিএনপি তাকে নিয়ে গর্ববোধ করে।

খন্দকার মোশাররফের সভাপতিত্বে ও সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের সদস্য সচিব এম কাইয়ুম চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.)  হাফিজ উদ্দিন আহমদ, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু,  সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, হবিগঞ্জের জিকে গউস, প্রয়াত এম সাইফুর রহমানের ছেলে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য এম নাসের রহমান প্রমুখ।

২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে নিজের গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান সাইফুর রহমান।

শেয়ার করুন....

আরো দেখুন